ফেসবুক বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিন, পার্সোনাল এবং বিজনেস পেইজের লাইক বাড়ান

আজকাল টিভি, রেডিও, পত্রিকা ও অন্যান্য গণমাধ্যমের মত ফেসবুকও নির্দিষ্ট পণ্য বা কোম্পানির বিজ্ঞাপন ও প্রচার প্রচারণা করা হয়। ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে মুহূর্তের মধ্যে নির্দিষ্ট পণ্যের কোম্পানি/ পেইজ/ ওয়েবসাইট/ পণ্যের বিজ্ঞাপন লাখো মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া সম্ভব।

ফেসবুকের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন মুলত ডিজিটাল মার্কেটিং এরই একটি অংশ। সাধারণ বা গতানুগতিক মার্কেটিং এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাঝে কিছু মৌলিক পার্থক্য রয়েছে। দিন যত গড়াচ্ছে পণ্যের বিজ্ঞাপন তথা মার্কেটিং পলিসি ততই ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রতি ধাবিত হচ্ছে। 

মানুষ এখন সাধারণত বেশীরভাগ সময়ই অনলাইন তথা ফেসবুকে থাকতে পছন্দ করে। শিল্পপতি হতে দিন মজুর প্রায় সবাই এখন ফেসবুক ব্যবহার করছে। ভাবতে অবাক লাগে, বাংলাদেশের মত তৃতীয় বিশ্বে চার কোটির অধিক মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করে! সুতরাং বলার অপেক্ষা রাখে না, বাংলাদেশের মার্কেটেও ফেসবুক মার্কেটিং এর একটি উর্বর ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে।

সাধারণ মার্কেটিং পদ্ধতির চেয়ে ডিজিটাল মার্কেটিং পদ্ধতি বর্তমানে অধিক ফলপ্রসূ ও কার্যকর। এর কারণ হলো, ডিজিটাল মার্কেটিং এ নির্দিষ্ট পণ্য বা সেবাটি যে কমিউনিটিকে টার্গেট করে করা হয়েছে, ঠিক সেই কমিউনিটির লোকদের দেশ, স্থান, বয়স, লিঙ্গ, আগ্রহ ইত্যাদি ভেদে টার্গেট করা যায়। কাস্টমারদের খুব সহজে ফিল্টারেট এবং টার্গেট করা যায় বলে এখানে সময় এবং অর্থের অপচয় খুবই কম। যা সাধারণ মার্কেটিং পদ্ধতিতে কল্পনাও করা যায় না। 

ডিজিটাল মার্কেটিং এর সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হলো, এটি অত্যন্ত কম খরচ, দ্রুত গতি সম্পন্ন এবং অধিক কার্যকরী । 

বাংলাদেশে ইন্টারনেটের ক্রমবর্ধমান পরিবেশে “ডিজিটাল মার্কেটিং সলিউশন” এর অংশ হিসেবে “অ্যাডসেন্স আইটি” চালু করেছে “ফেসবুক মার্কেটিং সার্ভিস”। 


♦ “ফেসবুক মার্কেটিং সার্ভিস” টি যাদের জন্য করা হয়েছেঃ

  • যারা স্বল্প খরচে অনলাইনে নিজেদের কোম্পানি বা পণ্যের বিজ্ঞাপন করতে চান।
  • খেলোয়াড়, রাজনীতিবিদ, লেখক, বুদ্ধিজীবী, শিল্পী, ভিআইপি ইত্যাদি নিজেদের নামে যারা ফেসবুক ফ্যান পেইজ করতে চান
  • যারা বিভিন্ন প্রচার প্রচারণার উদ্দেশ্যে বড় আকারে ফেসবুক ফ্যান পেইজ তৈরি করতে চান
  • যারা ই-কমার্স বা অনলাইনে পণ্য বিক্রি করতে চান তাঁদের জন্য।

♦ “ফেসবুক মার্কেটিং সার্ভিস” টিতে যে যে সেবা অন্তর্ভুক্ত রয়েছেঃ 

  • ব্যবসায়িক অথবা ব্যক্তিগত ফেসবুক পেইজের লাইক বাড়িয়ে দেয়া
  • ফেসবুকের মাধ্যমে নির্দিষ্ট সেবা বা পণ্যের বিজ্ঞাপন দেয়া
  • ক্ষেত্র বিশেষে ফেসবুক পেইজটিকে “ভেরিফাইড” করে দেয়া।
  • ফেসবুক পেইজের সর্বাত্মক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

* “আমরা ফেসবুক প্রফেশনাল”। আমাদের মাধ্যমে ফেসবুকে আপনার ব্যবসা, পণ্য বা সেবা ইত্যাদির প্রোমোশন করতে আমাদের সাপোর্ট সেন্টারে যোগাযোগ করুন। …ধন্যবাদ।